বৃহস্পতিবার, ১৮ জুলাই ২০২৪, ১২:৫২ অপরাহ্ন
এইমাত্র পাওয়া সংবাদ :
ফেনীতে উপজেলা পরিষদ নির্বাচনে কেন্দ্রে জালভোট দেওয়ায় সহকারী প্রিসাইডিং কর্মকর্তা প্রত্যাহার ও পোলিং কর্মকর্তা সহ আটক ১৪ জন । ফেনীর সোনাগাজীতে সিল মারা ব্যালট সহ ছবি তুলে সামাজিক মাধ্যমে দেয়া ইয়াকুব আলী আটক । । ফেনীর ফুলগাজীতে ভারতীয় উজানের ঢলে বিপদসীমার ৫০ সেন্টিমিটার ওপর দিয়ে প্রবাহিত হচ্ছে মুহুরী নদীর পানি । । বাংলাদেশের ঘূর্ণিঝড় রেমালে নিহতদের জন্য শোক প্রকাশ করেছে ফ্রান্স । । দিল্লিতে তাপমাত্রা সর্বোচ্চ ৫০ ডিগ্রি রেকর্ড হওয়ায় ভারতে 'তাপপ্রবাহ সতর্কতা' জারি । ।
ব্রেকিং নিউজ :
ফেনীতে শিক্ষার্থীদের বিক্ষোভে ছাত্রলীগের হামলা, পুলিশসহ আহত ২০ ফেনীকে যানজট মুক্ত করতে ট্রাফিক পুলিশের উদ্যোগ ফেনীতে কোটা আন্দোলনকারীদের মানববন্ধনে হামলার অভিযোগ দাগনভূঞার আলোচিত গফুর হত্যা মামলায় এখনও গ্রেফতার হয়নি আসামীরা ঢাকাস্থ ফেনী জেলা এসএসসি ৯৩ পক্ষ থেকে জিপিএ ৫ প্রাপ্ত সন্তানদের সংবর্ধনা দাগনভূঞা অপহৃত যুবক উদ্ধার, অপহরণ চক্রের ৫ সদস্য গ্রেফতার এড.আকরামুজ্জমানের মৃত্যুবার্ষিকীতে রোটারি ক্লাব অব ফেনী সেন্ট্রালের ফ্রি স্বাস্থ্য ক্যাম্প ফেনী সেন্ট্রাল লিও ক্লাবের (২০২৪-২৫) বর্ষের কমিটি ঘোষণা, সভাপতি কাজী ফাহাদ ও সম্পাদক মেহেদী হোসাইন কবিরহাটে এনজিওর ঋণের চাপে প্রবাসীর স্ত্রীর আত্মহত্যা ফেনীর বড় জামে মসজিদের সামনে পরিবেশ ক্লাব’র ডাস্টবিন স্থাপন

গোবিন্দগঞ্জে টাকা হাতিয়ে নিয়ে প্রার্থীতা বাতিলের পাঁয়তারার প্রতিবাদে সংবাদ সম্মেলন

  • আপডেট সময় : সোমবার, ৬ মার্চ, ২০২৩
  • ৪৪৫ বার পঠিত

গোবিন্দগঞ্জ প্রতিনিধিঃ

গাইবান্ধার গোবিন্দগঞ্জ উপজেলার বর্ধনকুঠি পাইলট উচ্চ বিদ্যালয়ের প্রধান শিক্ষক ও অফিস সহকারী যোগসাজসে আয়া পদে নিয়োগদানের আশ্বাসে পাঁচ লাখ টাকা অগ্রিম নিলেও নিয়োগ পরীক্ষার আগে প্রার্থীতা বাতিলের পাঁয়তারা করছে মর্মে প্রতিবাদে সংবাদ সম্মেলনে অভিযোগ তুলেছেন ভূক্তভোগী খাদিজা বেগম।

সোমবার (৬ মার্চ) গোবিন্দগঞ্জ প্রেস ইউনিয়ন কার্যালয়ে সাংবাদিকদের নিয়ে এক সংবাদ সম্মেলনে লিখিত বক্তব্য পাঠ করেন ক্ষতিগ্রস্ত চাকরী প্রার্থী খাদিজা বেগম। তিনি উপজেলার মহিমাগঞ্জ ইউনিয়নের জিরাই গ্রামের মো. রেজাউল করিমের স্ত্রী।
লিখিত বক্তব্যে খাদিজা বেগম জানান, গত ৬ জুলাই ২০২২ দৈনিক সমকাল পত্রিকায় বর্ধনকুঠি পাইলট উচ্চ বিদ্যালয়ে অষ্টম শ্রেণি পাশ যোগ্যতা সম্পন্ন আয়া পদে মহিলা নিয়োগের বিজ্ঞপ্তি দেওয়া হয়। বিদ্যালয়ের প্রধান মো. রেজাউল হক ও অফিস সহকারী আশরাফুল ইসলাম আমার স্বামীর পূর্ব পরিচিত হওয়ায় তাদের সাথে চাকরী পাওয়ার বিষয়টি আলোচনা হয়। পরবর্তীতে প্রধান শিক্ষক অফিস সহকারীর মাধ্যমে গত ২০ আগস্ট ৪ লাখ এবং ১০ সেপ্টেম্বর ১ লাখ টাকা গ্রহণ করে। এসময় কথা হয় নিয়োগপত্র দেওয়ার সময় আরও তিন লাখ টাকা দিতে হবে।

আমার স্বামী বিভিন্ন স্থানে ধার-দেনা, মূল্যবান স্থাবর-অস্থাবর সম্পদ বিক্রি করে বিগত সময়ে ৫ লাখ টাকা পরিশোধ করে অবশিষ্ট ৩ লাখ টাকা সংগ্রহের চেষ্টা চলমান রাখে। বর্তমানে বিদ্যালয়ের প্রধান শিক্ষক অন্য প্রার্থীদের নিকট আরও বেশি টাকা চুক্তিতে চাকুরির আশ^াস দিয়ে আমার প্রার্থীতা বাতিলের চেষ্টা করে। গোপনে বিষয়টি অবগত হয়ে আমরা অফিস সহকারী ও প্রধান শিক্ষকের সাথে যোগাযোগ করলে তারা আমাদের নিয়োগ দেই দিচ্ছি বলে কালক্ষেপণ করছে। আমরা গরীব অসহায় হওয়ায় উক্ত পদে চাকরি পেতে সর্বস্ব নষ্ট করেছি। চাকরিটি না পেলে আমারা চরম ক্ষতিগ্রস্ত হব। তাই প্রতিকার পেতে সংবাদ সম্মেলনের মাধ্যমে আমি উপজেলা পরিষদ, উপজেলা মাধ্যমিক শিক্ষা অফিসার, উপজেলা নির্বাহী অফিসার, জেলা প্রশাসক, জেলা শিক্ষা অফিসার, উপ-পরিচালক রংপুর বিভাগ, শিক্ষা সচিব, শিক্ষামন্ত্রী ও প্রধানমন্ত্রীর দৃষ্টি আকর্ষণ করছি।

এদিকে সংবাদ সম্মেলনের বিষযটি সাংবাদিকরা প্রধান শিক্ষক মো. রেজাউল হক কে অবগত করে জানতে চাইলে তিনি জানান, আমি কারো কাছে টাকা গ্রহণ করিনি।

সংবাদটি শেয়ার করুন

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

আরো জনপ্রিয় সংবাদ সমূহ
© সর্বস্বত্ব সংরক্ষিত- 2024 এ ওয়েব সাইটে প্রচারিত কোনো সংবাদ, তথ্য, ছবি, আলোকচিত্র, রেখাচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট কপিরাইট আইনে পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার করা যাবে না।
Design & Development By Hostitbd.Com