মঙ্গলবার, ০৭ ফেব্রুয়ারী ২০২৩, ১০:৩৫ পূর্বাহ্ন
এইমাত্র পাওয়া সংবাদ :
Welcome To Our Website...
ব্রেকিং নিউজ :
সাংবাদিক শাহজালালের পিতার দাফন সম্পন্ন ফেনী ফালাহিয়ার মাওলানা আবদুল হাই হুজুরের দাফন সম্পন্ন কোম্পানীগঞ্জে ব্যাডমিন্টন টুর্নামেন্টের উদ্বোধন সৌদিআরবস্থ ফেনী প্রবাসী ফোরামের উদ্যোগে ইমাম-মুয়াজ্জিনের মাঝে শীতের উপহার বিতরণ ফেনীতে ইসলামী আন্দোলনের জেলা সম্মেলন, সভাপতি নুরুল করিম, সম্পাদক একরামুল হক ভূঁঞা ফেনী কালিদহ প্রাণ বাঁচাতে দুই সন্তান নিয়ে পালিয়ে বেড়াচ্ছেন দিলরুবা ফেনীতে বিনামূল্যে ২৪ ঘণ্টা টেলি ডেন্টিস্ট্রি সেবা ও ওয়েবসাইট উদ্বোধন ছাগলনাইয়া কবির কনট্রাক্টরের কুলখানিতে মন্ত্রী এমপিদের মিলন মেলা ছাগলনাইয়ায় উত্তর কুহুমায় বিট পুলিশিং সভা অনুষ্ঠিত ফেনীতে সপ্তাহব্যাপী চারুকলা প্রদর্শনীর সমাপণী ও পুরস্কার বিতরণ

ছাগলনাইয়ায় প্রশাসনকে বৃদ্ধাঙ্গুলি দেখিয়ে সরকারী জায়গায় দোকান ঘর নির্মান

  • আপডেট সময় : বৃহস্পতিবার, ৫ জানুয়ারী, ২০২৩
  • ৬৫ বার পঠিত

ছাগলনাইয়া প্রতিনিধি
ছাগলনাইয়া উপজেলার মহামায়া ইউনিয়নের বটতলী বাজার ( মেইন রোড) হইতে চাঁদ গাজী স্কুল এন্ড কলেজের এবং বাজারে প্রবেশের যে রাস্তাটি রয়েছে তার উত্তর পাশ বাংলাদেশ সরকারের ১/১ খতিয়ানের জায়গা যার মালিক একমাত্র জেলা প্রশাসক।বর্তমানে আবদুল ওহাব পিতা আবদু ছাত্তার গং রা জায়গাটির উপর দোকান ঘর নির্মান করেছে। সরকারী জায়গায় দোকান ঘর নির্মানের বিষয়ে জানতে চাইলে আবদুল ওহাব জানান মাটিয়াগোদা মৌজার ৩৫২ নং খতিয়ানে সাবেক ৪৬৯০/৪৬৯১ দাগে এই জায়গার মালিক তারা বলে তিনি জানান। মালিকানা কি ভাবে পেয়েছেন জানাতে চাইলে তিনি জানান সিএস সুত্রে জায়গার প্রকৃত মালিক মাটিয়া গোধা মৌজার চিন্তা হরণ মালাকার শ্রী কুমার মালাকার, ও আশ্বিনী কুমার মালাকার থেকে এয়াজ বদল মুলে মালিক আমাদের বাপ দাদা, আমরা তাদের ওয়ারিশ হিসাবে মালিক।ছাগলনাইয়া উপজেলা সহকারী কমিশনার ভুমি মোহাম্মদ ফখরুল ইসলামের কাছে এই জায়গা সম্পর্কে জানতে চাইলে তিনি জানান এটা সরকারের ১ এর ১ খতিয়ানের জায়গা। যার মালিক জেলা প্রশাসক মহোদয়। তবে তারা আদালতে একটা মামলা দিয়েছে আদালতের রায় না আশা পর্যন্ত আমরা দোকান ঘর নির্মানে তাদের নিষেধ করেছি এবং সাইন বোর্ড লাগিয়ে দিয়েছি। তবে আবদুল ওহাব গংরা আমাদের নিষেধের তোয়াক্কা না করে প্রভাব খাটিয়ে সাইনবোর্ড উল্টো করে দিয়ে রাতের আঁধারে দোকান ঘর নির্মান করে। পরবর্তী বিষয় কি করবেন জানতে চাইলে তিনি জানান আমরা জেলা প্রশাসক মহোদয়ের নিকট দোকান ঘর উচ্ছেদের জন্য আবেদন করবো এবং আইন অনুযায়ী উচ্ছেদ করে সরকারের জায়গা সরকারকে বুঝিয়ে দিবো।উপজেলা নির্বাহী অফিসার মৌমিতা দাশের কাছে জানতে চাইলে তিনি জানান বিষয়টি আমার উপজেলা সহকারী কমিশনার ভুমি তদন্ত করবেন। আমি নিজেও গিয়ে দেখবো এবং আইন অনুযায়ী ব্যাবস্থা গ্রহণ করবো।চাঁদগাজী জাব্বারিয়া ইসলামিয়া ছুন্নিয়া মাদ্রাসার প্রিন্সিপাল মোঃ হোছাইন জানান এই জায়গাটি আমরা উপজেলা সহকারী কমিশনার থেকে ৩৬/৯৫/৯৬ নথিমুলে এক বছরের জন্য মাদ্রাসার কাজে লিজ নেই। লিজের মেয়াদ শেষ হওয়ার পর পুনরায় লিজের জন্য আবেদন করলে বাদি পক্ষে আদালতে মামলা দায়ের করার কারণে মামলার রায় না আশা পর্যন্ত পুনরায় লিজ দেয়নি মাদ্রাসা কর্তপক্ষকে।

সংবাদটি শেয়ার করুন

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

আরো জনপ্রিয় সংবাদ সমূহ
© সর্বস্বত্ব সংরক্ষিত- 2022 এ ওয়েব সাইটে প্রচারিত কোনো সংবাদ, তথ্য, ছবি, আলোকচিত্র, রেখাচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট কপিরাইট আইনে পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার করা যাবে না।
Design & Development By Hostitbd.Com